বার্সার স্বপ্নভঙ্গ, পিএসজিতেই থাকছেন নেইমার

আগামীকাল শেষ হবে গ্রীস্মের দলবদল। তবে এখন পর্যন্ত নেইমার জুনিয়রকে কিনতে পারেনি বার্সেলোনা। গোলডটকমের খবর নেইমার থেকে যাচ্ছেন পিএসজিতেই।

পিএসজির এই তারকার জন্য চেষ্টা চালায় রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা। রিয়ালকে আগেই না করে দিয়েছে পিএসজি। তবে নেইমারের জন্য ১৮২ মিলিয়ন দিতে রাজি হয়েছিল বার্সেলোনা। সে অর্থ এখনই দিচ্ছে না তারা। বিনিময়ে তারা ধারে পিএসজিতে পাঠাবে তিন তারকাকে। তারা হচ্ছেন, ইভান রাকেটিচ, ওসমান ডেম্বেলে আর জন ক্লেয়ার টডিবো।

তবে পিএসজি এই তিনজনকে স্থায়ীভাবে দলে দেওয়ার পাশাপাশি ১৩০ মিলিয়ন দাবি করে, তাও নগদ। সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয় বার্সা। সাথে জানিয়ে দেয় তারা আর নতুন প্রস্তাব দেবে না।

এর আগে দুই দফায় পিএসজিকে প্রস্তাব দেয় বার্সেলোনা। প্রথমবার তারা ফিলিপ কুতিনহো, ওসমান ডেম্বেলে, ইভান রাকিটিচ আর নেলসন সেমেদোর মধ্যে দুইজনকে নিয়ে আর সাথে ৪০ মিলিয়ন নিয়ে নেইমারকে চায়। তবে সে প্রস্তাবে রাজি হয়নি পিএসজি।

এরপর তারা ১৯০ মিলিয়নের একটি প্রস্তাব দেয়। সেটি অবশ্য শর্তে জর্জরিত ছিল। কারণ বার্সা জানায় নেইমারকে এখন ধারে নেওয়া হবে। এ বছর তারা ৪০ মিলিয়ন দেবে। আর আগামী বছর চুক্তি স্থায়ী করে বাকি ১৫০ মিলিয়ন দেবে। তবে সে প্রস্তাবে তারা রাজি হয়নি।

এই ব্যাপারে মুখ খুলেছেন প্যারিসের ক্লাবটির স্পোর্টিং ডিরেক্টর লিওনার্দো। সোমবারের মধ্যে সমঝোতায় পৌঁছানোর খুব একটা আশাও দেখছেন না পিএসজির এই কর্তা।

নিওলার্দো বলেন, বার্সেলোনার ওপর নির্ভর করছে সবকিছু। দলবদলের জানালা বন্ধ হতে আমাদের হাতে আছে আর মাত্র দুই দিন। এখন পর্যন্ত কোনও সমঝোতা হয়নি।

গোলডটকম বলছে, নেইমারের দল পরিবর্তনের কোনো সম্ভাবনা নেই। সামনে আসছে আন্তর্জাতিক ফুটবল। ওই বিরতি শেষেই তিনি পিএসজির হয়ে মাঠে নামবেন। যদিও মৌসুমের শুরু চার ম্যাচে তাকে স্কোয়াডেই রাখেনি পিএসজি।

গোলডটকম বলছে, ইতোমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন নেইমার। ২০১৯-২০ মৌসুমে পিএসজিতেই থাকবেন তিনি। আন্তর্জাতিক বিরতির পরই ফিরবেন মাঠে।