ভারতকে কাঁদিয়ে ছাড়লেন মহারাজ-ফিল্যান্ডার

পুনে টেস্টের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করে বিরাট কোহলির ডাবল সেঞ্চুরিতে ৫ উইকেটে ৬০১ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে ভারত। জবাবে দ্বিতীয় দিনের শেষ কয়েকটি ওভারেই ৩ উইকেট হারিয়ে বসে দক্ষিণ আফ্রিকা।

এরপর আজ সকালে ব্যাট করতে নামে ডি কক বাহিনী। তবে অবস্থার কোনো পরিবর্তন হয়নি। তৃতীয় দিনে ১ রান যোগ করেই বিদায় নেন এনরিখ নর্তজে। এরপর ৩০ রান করা থিউনিসকে নিজের শিকার বানান উমেশ যাদব। এতে ৫৩ রানেই চলে যায় ৫ উইকেট।

এরপর অবশ্য ডু প্লেসি আর ডি কক প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। তবে সেটা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। দলীয় ১২৮ রানের মাথায় ৩১ রান করা ডি কককে ফিরিয়ে প্রতিরোধ ভাঙেন রবিচন্দন অশ্বিন। ১৩৯ রানের মাথায় মুতুস্বামীকে ফেরান জাদেজা।

এরপর দ্রুত ফিরে যান ডু প্লেসিও। যদিও তিনি ৬৪ রান করেন। তবে ততক্ষণে ১৬২ রানে চলে গেছে ৮ উইকেট।

ভারত যখন বড় লিডের সংগ্রহ দেখছিল তখনই প্রতিরোধ গড়েন ভারনন ফিল্যান্ডার আর কেশব মহারাজ। তাদের নবম উইকেট জুটি থেকে আসে ১০৯ রান। রানের চেয়ে বড় কথা হচ্ছে এই দুজন খেলেন ২৬৭ বল।

ডু প্লেসি আউট হন ৫৮.৩ ওভারের সময়। কেশব মহারাজ ১৩২ বলে ৭২ রান করে যখন নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরেন তখন ছিল ১০১.৪ ওভার। দিনের বাকি ছিল আর ৫ ওভার। শেষ পর্যন্ত অশ্বিনের জাদুতে অলআউট হয় দক্ষিণ আপ্রিকা। তবে ফিল্যান্ডার দেখিয়ে গেছেন কীভাবে টেস্ট খেলতে হয়।

ভারতীয় বোলারদের নাভিশ্বাস ছুটিয়ে শেষ পর্যন্ত তিনি ১৯২ বলে ৪৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। দক্ষিণ আপ্রিকার ইনিংস থেমেছে ২৭৫ রানে। এখনো তার পিছিয়ে ৩২৬ রানে। বাকি আছে আরও ২ দিন।

২৯ ওভারে ৬৯ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়েছেন অশ্বিন। ১৩ ওভার বল করে ৩৭ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন উমেশ যাদব।