দেখে নিন আইপিএলের দশক সেরা একাদশ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) গত দশ বছরের সেরা একাদশ ঘোষণা করেছে জনপ্রিয় ক্রীড়া ম্যাগাজিন উইজডেন। ক্রিকেটের বাইবেল খ্যাত উইজডেনের আইপিএল দশক সেরা একাদশে অধিনায়ক হিসেবে রাখা হয়েছে রোহিত শর্মাকে।

আইপিএলে অধিনায়ক হিসেবে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে চারবার শিরোপার স্বাদ পাইয়েছেন রোহিত। এ কারণে উইজডেনের একাদশে সহজে অধিনায়কত্ব পেয়েছেন রোহিত।

এই একাদশে রোহিতের সঙ্গে ওপেনার হিসেবে আছেন ক্রিস গেইল। দশকের শুরুর দিকে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে খেলা গেইল বর্তমানে খেলছেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে। পুরো দশকে আইপিএল মাতিয়েছেন ক্যারিবিয়ান এই দানবীয় ব্যাটসম্যান।

তিন নম্বরে রাখা হয়েছে চেন্নাই সুপার কিংসের সুরেশ রায়নাকে। গেইলের মতো দশকের শুরুতে দাপট দেখিয়ে খেলে গেছেন রায়না। ১৯৩ ম্যাচে ৫৩৬৮ রান করা রায়না, আইপিএলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

১৭৭ ম্যাচে ৫৪১২ রান করে আইপিএলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ব্যাঙ্গালুরুর অধিনায়ক বিরাট কোহলি। আইপিএলে এখনও শিরোপা না জেতা কোহলি আছেন একাদশের চার নম্বরে।

পাঁচ নম্বরে আছেন ব্যাঙ্গালুরুর আরেক ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স। আইপিএলের সর্বোচ্চ দশ রান সংগ্রাহকের মধ্যে ডি ভিলিয়ার্সের স্ট্রাইক রেট সবচেয়ে বেশি (১৫১.২৩)।

এরপরে আছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। চেন্নাইকে তিনবার শিরোপা জেতানো ধোনি অবশ্য উইজডেনের এই একাদশের অধিনায়ক নন। ১৭০ ইনিংসে ৪২.২০ গড়ে ৪৪৩২ রান করা ধোনি এই একাদশে আছেন উইকেটরক্ষক এবং ফিনিশার হিসেবে।

তারপর আছেন চেন্নাইয়ের অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজা। স্পিন বোলিং, ব্যাট হাতে ফিনিশিং এবং দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়ের জন্য তাঁকে সহজেই নির্বাচন করেছে উইজডেন।

 একাদশে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত স্পিনার হিসেবে রাখা হয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের সুনীল নারিনকে। যদিও ২০১২ সাল থেকে অসাধারণ খেলতে থাকা নারিন গত কয়েক আসরে ওপেনার হিসেবে নেমেও সাফল্য পাচ্ছেন।

মুম্বাইয়ের চার শিরোপা জয়ের পেছনে বড় অবদান আছে দুই পেসার লাসিথ মালিঙ্গা এবং জাসপ্রিত বুমরাহের। দুজনই ঠাই পেয়েছেন এই একাদশে। তাদের সঙ্গে তৃতীয় পেসার হচ্ছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ভুবনেশ্বর কুমার।

এ ছাড়া এই একাদশে দ্বাদশ ব্যক্তি হিসেবে আছেন চেন্নাইয়ের অলরাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভো।