ভারতের নাগরিকত্ব নিচ্ছেন শোয়েব আখতার!

ক্রিকেট এখন ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে নির্বাসিত। কিন্তু ক্রিকেট খেলা না হলেও দুই দেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে একে অপরের প্রতি কিছুটা হলেও টান রয়েছে। যদিও সাম্প্রতিক সময়ে ভারতের বিরুদ্ধেই কথা বলছেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা।

রবিবার রাতে ব্যাঙ্গালুরুতে ভারত ৭ উইকেটে অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর পর শোয়েব আখতার যেভাবে উল্লাস প্রকাশ করেছেন, সেটা দেখে অনেকেই অবাক। মোটকথা, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জিতেছিল ভারত, আর খুশিতে উল্লাস প্রকশা করেছে পাকিস্তানি শোয়েব আখতার।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুর্দান্ত এই জয়ের পর ভারতকে প্রশংসায় ভাসিয়ে দিলেন শোয়েব আখতার। দু’দেশের মধ্যে তিন ম্যাচের এই একদিনের সিরিজকে ‘মর্যাদার লড়াই’ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন শোয়েব। অতীতের ভারতীয় দলগুলোর মতো বিরাট-বাহিনী চাপের মুখে টেনশনে ভেঙে পড়ে না বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস’ খ্যাত শোয়েব বলেন, এই সিরিজ ছিল সম্মানের লড়াই। এটা নতুন ভারতীয় দল। যা মোটেই আমাদের সময়ের মতো নয়।

পাকিস্তানের সাবেক গতি তারকা সিরিজে পিছিয়ে পড়েও ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য কৃতিত্ব দিয়েছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে কোহলিকে ‘অসাধারণ নেতা’ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন শোয়েব আখতার।

এই ভিডিও প্রকাশ হতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছে পাকিস্তানের অনেক সাধারণ মানুষ। শোয়েব আখতারকে তুলোদুনা করছেন তারা। অনেকে বলছেন, ভারতের নাগরিকত্ব পেতেই এ কাজ করছেন শোয়েব।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি পাকিস্তানের একমাত্র হিন্দু খেলোয়াড় দানিশ কানেরিয়া পাকিস্তান দলে বঞ্চনার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ তুলেন শোয়েব। সমালোচনার মুখে পরে সে অভিযোগ অস্বীকার করেন। এরপর থেকেই পাকিস্তানিদের একপ্রকার চোখের বিষ সাবেক গতিতারকা।