ইতিহাস গড়তে বাংলাদেশের চাই ২১২

যুব বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনালে দুর্দান্ত বল করে নিউজিল্যান্ডকে মাত্র ২১১ রানে আটকে দিয়েছে বাংলাদেশ। প্রথমবার বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠতে যুবাদের চাই এখন ২১২ রান। অবশ্য শেষ ওভারে ২১ রান না হলে টার্গেটটা আরেকটু ছোট হতো।

টস হেরে আগে বোলিং পায় বাংলাদেশ। দলকে শুরুতেই ব্রেক এনে দেন শামীম হোসাইন। রায়াস মারিও তার করা বলটি না বুঝেই ব্যাট চালিয়ে তানজিম সাকিবের হাতে ক্যাচ তুলে দেন। তখন রান ছিল ৫। এরপর ১২তম ওভারে আরেক ওপেনার অলি হোয়াইটকে তুলে নেন রাকিবুল হাসান।

এরপর অবশ্য প্রতিরোধের চেষ্টা করে লেলম্যান আর লিন্ডস্টোন। তবে তাদের প্রতিরোধ বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দেননি শামীম হাসান। এবার তিনি শিকার বানান ৫০ বলে ২৪ রান করা লেলম্যানকে। তাতে বেশ চাপে পড়ে যায় কিউইরা।

সে চাপ সামলে উঠার আগেই আসে চতুর্থ আঘাত। এবার ঘাত হাসান মুরাদ। তিনি ফেরান ১০ রান করা অধিনায়ক জোসে টাসকফকে। তখন কিউইদের ২৬ ওভারে রান ছিল ৭৪।

এরপর অবশ্য আসে কঠিন প্রতিরোধ। লিনএস্টান আর বেকান হুইলার মিলে দলকে টানতে থাকে। যখন তাদের জুটি ভাঙে তখন রান ছিল ১৪১। লিন্ডস্টোন ৪৪ রান করেন।

তবে হুইলার লড়াই চালিয়ে যান। এই ব্যাটসম্যানের দৃড়তায় নিয়মিত উইকেট হারিয়েও। ২১০ রান তুলতে সক্ষম হয় নিউজিল্যান্ড। এর মধ্যে শেষ ওভারেই আসে ২২ রান।

হুইলার ৮২ বলে ৭৫ রানের মূল্যবার একটি ইনিংস খেলেন। শরীফুল ১০ ওভারে ৪৫ রান দিয়ে তিনটি উইকেট নেন। শামীম হাসান ও হাসান মুরাদ নেন দুইটি করে উইকেট।