ভালোবাসা দিবসে মুশফিক-মোস্তাফিজদের যন্ত্রণা!

আগামীকাল বিশ্ব ভালোবাসা দিবস ও পহেলা ফাল্গুন। এই অবস্থায় কক্সবাজার এখন গিগিজ করছে পর্যটকে। তার মধ্যেই বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) তৃতীয় রাউন্ড খেলতে চারটি দল এখন কক্সবাজারে।

তাতেই বেধেছে বিপত্তি। অতিরিক্ত পর্যটকের কারণে মন মতো হোটেলে রুম পেলেন না ক্রিকেটাররা।

হোটেল-সংকট নিয়ে ওয়ালটনের ম্যানেজার মিলটন আহমেদ বললেন, আমরা কোনো হোটেল পাচ্ছিলাম না। আমরা যেখানে আছি, সেখান থেকে আবার কাল হোটেল বদলাতে হবে, অথচ তখন আমাদের খেলা। এমন একটা অবস্থায় আছি আমরা। ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে সব আগে থেকে বুক করা। বিসিবিকে বলেছি, খেলা হয়তো অন্য ভেন্যুতে নেন, নয়তো হোটেলের ব্যবস্থা করে দেন। তখন বিসিবি এই হোটেল ঠিক করে দিয়েছে। এখানে আবার শর্ত হচ্ছে, কাল ও পরশু আমাদের অন্য হোটেলে থাকতে হবে। ক্রিকেটাররা এটা নিয়ে খুবই বিরক্ত।

পূর্বাঞ্চলের ম্যানেজার হাসিবুল হোসেন জানালেন, তাঁরাও কোনোভাবে একটা ব্যবস্থা করে নিয়েছেন, ‘ভালোবাসা দিবস হওয়ায় এই সংকট তৈরি হয়েছে। আমরা বাধ্য হয়ে একটু দূরের একটা হোটেলে গিয়েছি। বর্তমান হোটেলটা খারাপ নয়, তবে একটু দূর এই যা!’

ভালোবাসা দিবস কিংবা পয়লা ফাল্গুনের মতো বিশেষ দিবসে কক্সবাজারে যে হোটেল সংকট তৈরি হবে, সেটি নতুন কিছু নয়। প্রশ্ন হচ্ছে, এমন সময়ে বিসিবিই বা কেন সেখানে ম্যাচের আয়োজন করেছে কিংবা ভেন্যু যেহেতু আগে থেকেই জানা, প্রতিটি দলের ম্যানেজমেন্ট কেন বিষয়টি নিয়ে ভাবেনি?