বিশ্বকাপ বীর ইমনকে নোয়াখালীতে গণসংবর্ধনা

প্রথমবারের মতো যুব বিশ্বকাপ ঘরে তুলেছে বাংলাদেশ। এই জয়ে দলের প্রত্যেকেরই অবদান রয়েছে। তবে ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমনের অবদানটা একটু বেশিই। কারণ পায়ে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়েও ব্যাট করেছেন তিনি। াধিনায়ক আকবর আলীর সাথে তার দুর্দান্ত পার্টনারশিপেই বাংলাদেশের জয়ের পথ সুগম হয়। এই ব্যাটসম্যান সর্বোচ্চ ৪৭ রান করেন।

বিশ্বকাপের নায়ক এই ক্রিকেটারের বাড়ি নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে। বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর প্রথম তিনি আজ পাড়া দেন নিজের জন্মস্থানে। আর সেখানে গিয়ে সর্বস্তরের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন।

রোববার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিকালে ছয়ানী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তাকে গণসংবর্ধনা দেওয়া হয়।

লায়ন ইসমাইল-ফিরোজ ফাউন্ডেশন আয়োজিত এ সংবর্ধনায় ইমনের সহপাঠি, আত্মীয় স্বজনসহ দূর দূরান্ত থেকে বিপুল সংখ্যক ক্রিকেট প্রেমী অংশগ্রহণ করেন। এ সময় বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ইমনকে ফুল ও ক্রেস্ট দেওয়া হয়। এর আগে এলাকার যুবক ও তরুণরা তাকে বিশাল মটর শোভাযাত্রা সহকারে সংবর্ধনাস্থলে নিয়ে আসে।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নের ভবানী জীবনপুর গ্রামের সিরাজ বাবুলের ছেলে ইমন। তিন ভাই বোনের মধ্যে সবার ছোট ইমন।