অঘটন ঘটেই যাচ্ছে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে

একের পর এক অঘটন ঘটেই যাচ্ছে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে। শেষ ষোলোর লড়াইয়ে দুইটি দল ছাড়া কাঙ্খিত ফলাফল পায়নি কেউই। জুভেন্টাসের মতো দলও আটকে গেছে পুচকে লিওর কাছে।

ঘরের মাঠে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ অত্যন্ত শক্তিশালী দল হলেও লিভারপুল যে রকম ছন্দে রয়েছে, তাতে হিসাব বদলে দেওয়া অসম্ভব ছিল না। যদিও লিভারপুলকে ম্যাচ হারতে হয় ০-১ গোলে। ম্যাচে ৪ মিনিটে গোলের পরে বহু আক্রমণ করেও আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা।

বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ঘরের মাঠে পিএসজির মতো শক্তিশালী দলকে হারিয়ে দেয় ২-১ গোলে। ম্যাচের ৭০ মিনিট পর্যন্ত ১-১ গোলে সমতা ছিল। তবে ম্যাচের শেষ দিকে আর্লিং হাল্যান্ডের গোলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে বরুশিয়া।

মরিনহোর টটেনহ্যামকে তাদের ঘরের মাঠে ১-০ গোলে পরাজিত করেছে আরবি লেইপাজ। অপর ম্যাচে আটালান্টা নিজেদের মাঠে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করে ভ্যালেন্সিয়াকে।

সবচেয়ে বড় অঘটনের জন্ম দেয় লিও। ঘরের মাঠে তারা হারিয়ে দেয় ৯ বারের ফা্িনালিস্ট বায়ার্ন মিউনিখকে। ঘরের মাঠে ফেবারিট ছিল চেলসিই। তবে বায়ার্ন মিউনিখের তারা তারা ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়।

জয়ের দেখা পায়নি বার্সেলোনাও। নাপোলির মাঠে গিয়ে তারা ১-১ গোলে ড্র করেছে। অন্যদিকে, চ্যাম্পিয়ন্স লীগের বস হিসেবে খ্যাত রিয়াল মাদ্রিদ ঘরের মাঠে ২-১ গোলে হেরে গেছে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে।