পাপনের কথা রাখছেন না মুশফিক

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন দলের স্বার্থে মুশফিকুর রহিমের পাকিস্তান সফরে যাওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছিলেন। তিনি আশা প্রকাশ করেছিলেন দেশসেরা ব্যাটসম্যান নিজের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে তৃতীয় ধাপে দলের সঙ্গে পাকিস্তান যাবেন।

তবে মুশফিক তার নিজের সিদ্ধান্তেই অটল রয়েছেন। জানিয়েছেন তৃতীয় ধাপেও তিনি পাকিস্তান যাচ্ছেন না।

একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে মুশফিক বলেন, পাকিস্তান সফরে যাওয়া না যাওয়া নিয়ে আমি নিজের অবস্থান আগেই পরিষ্কার করেছি। পাকিস্তান সুপার লিগ (পিসিএল) থেকে প্রস্তাব এসেছিল এবং তারা জানতে চেয়েছিল আমি আমার নাম দেব কি না কিন্তু আমি সম্মতি জানাইনি।

তিনি আরও বলেন, তাদের (বোর্ড) অবশ্যই আমার সিদ্ধান্তকে সম্মান জানানো উচিত এবং আমি এমনকি বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে জেনেও নাম দেইনি। ফলে এটা এখন পরিষ্কার (যে আমি যাব না) এবং ভবিষ্যতে এটা বদলানোর কোনো সম্ভাবনা নেই এবং যারা সফরে যাচ্ছে তাদের জন্য আমার শুভকামনা রইলো।

নিরাপত্তাজনিত কারণে পাকিস্তান সফর থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নেন মুশফিক। এ নিয়ে ওই সময় আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়।  মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) ম্যাচ শেষে পাকিস্তান সফরে মুশফিক যাবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, মুশফিকের ব্যাপারে আমরা কিছু শুনিনি। তবে আশা করি সে যাবে। দেশের কথাও ভাবতে হবে। পরিবারের পাশাপাশি দেশও গুরুত্বপূর্ণ। ওরা (চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়) সবাই জানে যে যেতে হবে। দেশের পক্ষে খেলা হলে যেতে হবে।

এরপর পাকিস্তান সফরের শেষ ধাপে মুশফিকের যাওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন পাপন। তিনি বলেন, আমার মনে হয় তার (সিদ্ধান্ত) পরিবর্তন করা উচিত। পাকিস্তান ভিন্ন ইস্যু। কারণ পাকিস্তান ইস্যুতে আমি নিজে থেকেই বলেছি যে কাউকে জোর করবো না। আমি মনে করি সবার সঙ্গে কথাবার্তা বলে ওর যাওয়া উচিত।