করোনা যুদ্ধে বিপুল পরিমাণ অর্থ দিলেন মেসি-রোনালদো-গার্দিওলা

করোনা ভাইরাসে স্থবির পুরো বিশ্ব। তবে এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে নেমে পড়েছেন বহু মানুষ। বসে নেই লিওনেল মেসি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, পেপ গার্দিওলারা। কোভিড-১৯ যুদ্ধে নেমে পড়েছেন তারা।

বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মহামারী দূর করতে ১০ লাখ ইউরো দান করেছেন। বাংলাদেশি মুদ্রায় ৯ কোটি ২১ লাখ টাকার এই অর্থ তিনি বার্সেলোনার একটি সর্ব সাধারণের হাসপাতালে দিয়েছেন।

স্প্যানিশ পত্রিকা মার্কা অবশ্য জানিয়েছে, এই অর্থ মেসি বার্সেলোনার একটি ক্লিনিক ও আর্জেন্টিনার আরেকটি স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রে দিয়েছেন। তবে মুন্দো দেপোর্তিভো জানায় আর্জেন্টিনায় তিনি আলাদা ভাবে দান করেছেন।

কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের জন্য তিনটি আইসিইউ তৈরির অর্থ দিচ্ছেন সিআর সেভেন ও তার এজেন্ট জর্জে মেন্দেস।

নিজ দেশ পর্তুগালের লিসবন ও পোর্তো শহরের দুটি হাসপাতালে তিনটি আইসিইউর অর্থ দিচ্ছেন রোনালদো ও মেন্দেস। তারা দু’জনে মিলে এক মিলিয়ন ইউরো (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ৯ কোটি) দেবেন বলে জানায় বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম। যেখানে লিসবনের সান্তা মারিয়া হাসপাতালে দুটি ওয়ার্ড ও পোর্তোর সান্তো অ্যান্তোনিও হাসপাতালে একটি আইসিইউ করা হবে।

সান্তা মারিয়ার আইসিইউতে ১০টি বেড ও ভেন্টিলেটর থাকবে। আর সান্তো অ্যান্তোনিতে ১৫টি বেড ও একটি ভেন্টিলটরের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

করোনার বিপক্ষে লড়াইয়ের জন্য ১ মিলিয়ন ইউরো দান করেছেন ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার সিটির কোচ পেপ গার্দিওলা। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে কোচিং করালেও গার্দিওলার বাড়ি বার্সেলোনায়। সেখানেই নিজের এই অর্থ দান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। তার এই দান করা অর্থ বার্সেলোনার মেডিকেল কলেজ এবং আনহেল সোলের দানিয়েল ফাউন্ডেশনের কয়েকটি ক্যাম্পেইনের জন্য ব্যয় করা হবে। অর্থাৎ এই টাকায় মেডিকেল সরঞ্জাম কেনা হবে।