জামাল ভূঁইয়ার ভক্ত আলিয়া ভাট

সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ জাতীয় দলের জন্য সবচেয়ে স্মরণীয় ম্যাচ সম্ভবত ভারতের মাটিতে ১-১ ড্র ম্যাচটি।ভারতের বিপক্ষে ওই ম্যাচে জামালের খেলা নজর কেড়েছিল ভারতীয় সমর্থকদেরও। এমনকি ম্যাচে শেষে জামালের সঙ্গে হোটেল লবিতে দেখা করতে এসেছিলেন বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট।

জামাল নিজেই জানিয়েছেন এ কথা। ফেসবুক আড্ডায় 'চুপচাপ' জামাল এদিন ভক্তদের সঙ্গে এত স্বাভাবিক আড্ডা দিলেন যে মনেই হলো না তিনিই দেশের সবচেয়ে বড় ফুটবল তারকা তথা 'পোস্টারবয়'।

একসময় স্ট্রাইকার হতে চাওয়া জামাল ভূঁইয়া কীভাবে মিডফিল্ডার সেটাও জানা গেল। সেই সঙ্গে জানা গেল তার প্রিয় ফুটবলারদের নামও, 'আসল রোনালদো (ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি স্ট্রাইকার রোনালদো নাজারিও)।

তিনি বলেন, ভাবতাম (রোনালদো) ওর মতো স্ট্রাইকার হব। কিন্তু বড় হয়ে মনে হয়েছে মিডফিল্ডই আমার জন্য মানানসই। এই পজিশনে আমার প্রিয় জিনেদিন জিদান। তিন জন আইডল রোনালদো-জিদান-রোনালদিনহো।'

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি নিয়ে জামাল বলেন, 'ভারতের বিপক্ষে জিততে পারলে এ ম্যাচটা সেরা ম্যাচ থাকত। আসলে এ ম্যাচটা নিয়ে অনেক হাইপ ছিল। প্রেস কনফারেন্সে অনেক সাংবাদিক ছিল। আমরা যখন ভারতে গেলাম, বিমানবন্দরে অনেক সাংবাদিক এসেছিল। ওরা ধরে নিয়েছিল আমরা হারব। তিন-চার গোল খাব। প্রেস কনফারেন্সেও একই কথা বলেছিল। আমি বলেছিলাম-আমি ভারতীয়দের হৃদয় ভাঙব। শুনে ওরা হেসেছিল।'

তিনি আরও বলেন, যখন অতিরিক্ত সময় মিলিয়ে খেলার মিনিট আট বাকি, তখন মনে হলো এই খেলাটা ধরে রাখি। আর তো মাত্র কয়েক মিনিট। কিন্তু যখন ওরা গোল দিল, আমার হৃদয় ভেঙে গিয়েছিল। জীবন ভাই (নাবীব নেওয়াজ জীবন) সুযোগ পেয়েছিল। ওর একটা শট গোললাইন থেকে সেভ করে এক ডিফেন্ডার। এ ম্যাচটা জিতলে সেরা ম্যাচ হতো। ওই ড্র নিয়ে এখনও আমার রাগ হয়।

ওভাবে ড্র করায় ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি নিজের সেরার ম্যাচের তালিকায় রাখেননি জামাল। বরং তার প্রিয় ম্যাচ হলো ২০১৮ এশিয়ান গেমসে কাতারের বিপক্ষে ১-০ গোল জেতা ম্যাচটি। ওই ম্যাচ জেতায় বাংলাদেশ এশিয়ান গেমসের দ্বিতীয় পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল।