কোন যুক্তিতে লিটন-সোহান নিয়মিত একাদশে ?

মিরপুরে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের দুটি সিরিজে ফ্লপ ছিলেন ওপেনার লিটন কুমার দাস। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও ব্যর্থতার ধারাবাহিকতায় ছুটছেন। তবুও প্রতি ম্য্যাচেই তাকে নামানো হচ্ছে একাদশে। অথচ সৌম্য সরকার মাত্র এক ম্যাচ খারাপ করাতেই বাদ পড়েছেন। এ নিয়ে উঠছে নানা প্রশ্ন।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নামার আগে সবশেষ ১২ ইনিংসে লিটনের রান ছিল ১০.৯২ গড়ে ১৩১! এ বছর তার সর্বোচ্চ রান ৩২। বিশ্বকাপে ৫ ম্যাচে সর্বোচ্চ করেছেন ২৯ রান। তিন ম্যাচে তিনি দুই অঙ্কের কোটায় পৌঁছাতে পারেননি। উল্টো প্রতিদিন তিনি দ্রুত আউট হয়ে অন্য ব্য্যাটারদের ওপর চাপ সৃষ্টি করছেন। যার ফলে পাওয়ার প্লেতে রান আসছে না টাইগারদের। এখানেই পিছিয়ে পড়তে হচ্ছে বাংলাদেশকে।

তবু লিটন নিয়মিত একাদশে। তার দলে অন্তর্ভুক্তি নিয়ে এত সমালোচনার কোনোটাই পাত্তা দিচ্ছে না বিসিবি।

এসব পরিসংখ্যান জানিয়ে ক্রীড়াব্যক্তিত্ব গাজী আশরাফ হোসেন লিপু বিস্ময় প্রকাশ করে কলাম লিখেছেন।

গণমাধ্যমে লেখা কলামে তিনি বলেছেন, ‘লিটনের মতো এমন সুযোগ পৃথিবীর কোনো ব্যাটার পায় কিনা, জানি না। ইংল্যান্ডের ম্যাচে দুটি চারের ঝলক দেখিয়েছে সে। এর পর বাস্তবতাটা আগের মতোই দুঃখজনক। ফের কম রানে সাজঘরে লিটন।

লিটন কিভাবে দলে আছে সে প্রশ্ন তুলেছেন পাকিস্তানের গ্রেট ওওয়াসিম আকরাম। তিনিও বুঝতে পারছেন না একজন ক্রিকেটার এত খারাপ করার পরও দলে কিভাবে টিকে থাকে।

এদিকে, লিটনের মতো অবস্থা নুরুল হাসান সোহানেরও। বিশ্বকাপে ৫ ম্যাচেই খেলেছেন তিনি। সর্বোচ্চ রান ১১। তাকে ফিনিশার বলা হল্রে স্ট্রাইকরেট শয়ের নিচে। তিনি কিভাবে দলে নিয়মিত খেলছেন সে প্রশ্নও অনেকের মনে।