গোল্ডেন বুট এমবাপ্পের, গোল্ডেন বল মেসির

কাতার বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচে যেমন হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হলো, ঠিক তেমনই উত্তাপ ছড়ালো গোল্ডেন বুটের প্রতিদ্বন্দ্বিতা। শেষ পর্যন্ত কিলিয়ান এমবাপ্পে জিতলেন এই সম্মানজনক অ্যাওয়ার্ড। কিন্তু চওড়া হাসি হাসলেন লিওনেল মেসি। ৮ গোল ও ২ অ্যাসিস্টে এবারের আসরের শীর্ষ গোলদাতা হয়েছেন এমবাপ্পে।


১২০ মিনিটের খেলায় হ্যাটট্রিক করেছেন ফ্রান্সের ২৪ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ের খেলা শেষ হয় ৩-৩ গোলে। টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে জিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। তাতে ইতালি ও ব্রাজিলের পর তৃতীয় দল হিসেবে টানা দুটি বিশ্বকাপ জেতা হলো না ফ্রান্সের।


মেসি ও এমবাপ্পে সমান পাঁচটি করে গোল নিয়ে ফাইনাল খেলা শুরু করেন। তবে তিনটি অ্যাসিস্টে এগিয়ে ছিলেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। তাদের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিলেন অলিভিয়ের জিরুদ ও জুলিয়ান আলভারেজ। শেষ দুজন গোলের দেখা পাননি, তবে পাল্লা দিয়েছেন মেসি-এমবাপ্পে।


২৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে এগিয়ে দেন মেসি, এগিয়ে যান গোল্ডেন বুটের লড়াইয়েও। এরপর অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার গোলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ ছিল আর্জেন্টিনার হাতে। গোল্ডেন বুটটাও যেন মেসির অপেক্ষায় ছিল। কিন্তু খেলা শেষ হওয়ার ১০ মিনিট আগে ৯৭ সেকেন্ডের ব্যবধানে জোড়া গোল করে এমবাপ্পে পেছনে ফেলেন এবং ম্যাচ অতিরিক্ত সময়ে নিতে ভূমিকা রাখেন।


১০৮ মিনিটে আবার মেসি এগিয়ে দেন আর্জেন্টিনাকে, সঙ্গে গোল্ডেন বুটেরও শক্ত দাবিদার হন। কিন্তু এমবাপ্পে আরেকটি পেনাল্টি থেকে নিজের অষ্টম গোল করেন। জিতে নেন গোল্ডেন বুট।


সেরা গোলকিপারের পুরস্কার গোল্ডেন গ্লাভস জিতেছেন আর্জেন্টিনার এমিলিয়ানো মার্তিনেজ। টাইব্রেকারে কিংসলে কোম্যানের গোল ঠেকান তিনি। এছাড়া নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে সেমিফাইনালেও পেনাল্টি শুটআউটে জয়ের নায়ক তিনি। প্রত্যাশিতভাবে বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার গোল্ডেন বল জিতেছেন মেসি। সেরা তরুণ খেলোয়াড় হয়েছেন এনজো ফার্নান্দেজ।