প্রথমবারের মতো আইপিএলে তিন বাংলাদেশি

প্রথমবারের মতো আইপিএলের এক আসরে খেলার সুযোগ পাচ্ছেন বাংলাদেশের তিন ক্রিকেটার- সাকিব আল হাসান, লিটন দাস ও মুস্তাফিজুর রহমান।


আগের বারের ফ্র্যাঞ্চাইজি দিল্লী ক্যাপিটালসেই এবারও থাকছেন মুস্তাফিজ। আর শুক্রবার ভারতের কোচিতে অনুষ্ঠিত স্বল্প পরিসরের নিলামে দল পেয়েছেন সাকিব ও লিটন।


আগের বারের নিলামে দুইবারের ডাকেও অবিক্রিত থেকেছিলেন সাকিব আল হাসান। ভিত্তিমূল্য কমিয়ে এবারেও প্রথম ডাকে দল পাননি টাইগারদের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। তবে দ্বিতীয় ডাকে ভিত্তিমূল্য দেড় কোটি রুপিতে সাকিবকে দলে টেনেছে পুরোনো ঠিকানা কোলকাতা নাইট রাইডার্স।


সাকিবের মতোই নিলামের প্রথম ডাকে দল পাননি লিটন দাস। দ্বিতীয় ডাকে অবশ্য তাকে দলে টেনেছে সাকিবের কোলকাতা নাইট রাইডার্স। ভিত্তিমূল্য দেড় কোটি রুপিতে তাকে দলে টেনেছে কোলকাতার ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।


ভিত্তিমূল্য দেড় কোটি রুপিতে গতবার মুস্তাফিজুর রহমানকে দলে টেনেছিল দিল্লী ক্যাপিটালস। ফিজের নতুন বলে সুইং ও কাটারে মুগ্ধ হয়ে এবারও তাকে দলে রেখে দিয়েছে দিল্লীর ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।


বাংলাদেশের হয়ে এখন পর্যন্ত আইপিএলে সবচেয়ে বেশি আসর ও ম্যাচ খেলেছেন সাকিব। ক্রিকেটের সবচেয়ে ব্যয়বহুল টুর্নামেন্টে ৭১ ম্যাচ খেলে ব্যাট ও বল হাতে মাঠ মাতিয়েছেন তারকা এই অলরাউন্ডার। সত্তরের বেশি ম্যাচ খেলে ২০ গড়ে তার রান ৭৯৩। আর বল হাতেও নিয়েছেন ৬৩টি উইকেট। রানের খেলা আইপিএলে সাকিবের ইকোনমি সাড়ে সাতের কম। দীর্ঘদিনের ফ্র্যাঞ্চাইজি কোলকাতার হয়ে দুটো শিরোপা জিতেছেন সাকিব। দুটো শিরোপাজয়ী ফাইনালেই দলের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছিলেন তিনি।


সাকিবের পর আইপিএলে বাংলাদেশের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলা ক্রিকেটার মুস্তাফিজ। ২০১৬ সালে আইপিএলে নিজের প্রথম আসের চমক দেখিয়েছিলেন কাটার মাস্টার। নৈপূন্য দেখিয়ে সেবার নিজের দল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে শিরোপা জিতিয়েছিলেন তিনই, জিতেছেন সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরষ্কারও।


এখন পর্যন্ত আইপিএলে মোট ৪৬ ম্যাচ খেলেছেন ফিজ। তাতে ৪৬টি উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ইকোনমি রেখেছেন ৮ এর নিচে। ব্যাট হাতে আইপিএলে তার রান ১২। সাকিব-মুস্তাফিজ আইপিএলে বেশ কয়েক বছর ধরে খেললেও এবারই প্রথম সেই মঞ্চে পা রাখতে যাচ্ছেন লিটন। ডানহাতি এ ব্যাটারের সাম্প্রতিল ফর্ম নিশ্চয়ই ভালো খেলার অনুপ্রেরনা যোগাবে তাকে। তবে জাতীয় দলের ধারাবাহিকতা আইপিএলের মঞ্চে ধরে তাখতে পারেন কিনা সেটাই এখন দেখার বিষয়।