দেখা করে তবেই ফিরলেন প্রিয়াঙ্কা

ভারতের উত্তরপ্রদেশের সোনভদ্রে গুলিতে নিহত ১০ জনের পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাতের আগেই আটক হওয়ার পরও সেই ১০ পরিবারের সাথে দেখা করে তবেই ফিরেছেন কংগ্রেস সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

শুক্রবার তাকে আটকে দেওয়া হলেও শনিবার সকালে তাঁর সঙ্গে নিহতদের পরিবারের সাক্ষাতের অনুমতি দেয় উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

জানা যায়, শুক্রবার সোনভদ্রের কাছে মির্জাপুরের একটি অতিথি নিবাসে রাত কাটান প্রিয়াঙ্কা। শনিবার সকালেই সনিয়া কন্যা অতিথি নিবাস থেকে বেরিয়ে ফের একবার সোনভদ্রে যাওয়ার চেষ্টা করেন এবং বলেন নিহতদের পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ না করে তিনি ওই স্থান ছাড়বেন না। কিন্তু এরপরে ওই নিহতদের পরিবারের সদস্যরা ওই অতিথি নিবাসের সামনে উপস্থিত হলে তাঁদের সেখানে প্রবেশ করে কংগ্রেস নেত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের অনুমতি দেয় পুলিশ।

সাক্ষাৎ শেষে প্রিয়াঙ্কা বলেন, নিহতদের পরিবারের ২ আত্মীয় আমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছেন, কিন্তু বাকি ১৫ জনকে আমার সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। আমাকেও তাঁদের সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। ভগবানই জানেন  ওঁদের মন সম্বন্ধে।

শুক্রবার দুপুরে ওই পরিবারগুলোর সাথে দেখা করতে রওনা হলে পথে মির্জাপুরে প্রিয়াঙ্কাকে আটকায় পুলিশ। পরে তিনি অবস্থান নেন অতিথি নিবাসে। এ ঘটনায় তোলপাড় শুরু হলে উত্তরপ্রদেশের পুলিশ তার সাথে দেখা করে ফিরে যেতে বলেন।

তবে তিনি ফেরত যাননি। একটি ছবিতে দেখা যায়, মির্জাপুরের ওই অতিথি নিবাসে লোডশেডিং হওয়ার ফলে দলের কর্মীদের নিয়ে অন্ধকারেই বসে আছেন তিনি। প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে থাকা অন্য কংগ্রেস কর্মীরাও অভিযোগ করেন যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাঁদের ফিরে যাওয়ার জন্যে চাপ দেওয়া হচ্ছে।