আসামির স্ত্রীকে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণ করলো পুলিশ

জেলবন্দি স্বামীকে দেখতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হলেন ৩৫ বছরের এক মহিলা। অভিযোগের আঙুল দুই জেলরক্ষী এবং অন্য দুই ব্যক্তির দিকে।

গত শুক্রবার রাতে এমনই ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের রাজগড়ে।

পুলিশ জানিয়েছে, নির্যাতিতা ওই মহিলার বাড়ি রাজগড় জেলার খেদওয়ার গ্রামে। তাঁর স্বামী সারাঙ্গপুর সাবজেলে বন্দি। জেলে স্বামীর সঙ্গে প্রায়ই দেখা করতে যান তিনি। সেই সূত্রেই তাঁর সঙ্গে আলাপ হয় ওই জেলের দুই রক্ষী হরিরাম ও মালি সিংহের সঙ্গে।

১ নভেম্বর রাতে ওই মহিলাকে ফোন করেন হরিরাম ও মালি সিংহ। ফোন করে ওই দু’জন রক্ষী তাঁকে বলেন, তাঁর স্বামী অসুস্থ। তাই ভর্তি করা হয়েছে সারাঙ্গপুর হাসপাতালে। সেই ফোন পেয়ে রামচন্দ্রকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন ওই মহিলা।

ঘটনার রাতে রামচন্দ্র ও তার ভাইপোর সঙ্গে বেরোয় ওই মহিলা। দুই জেলরক্ষীর ফোনে দেওয়া নির্দেশ মতো তারা মহিলাকে নিয়ে আসে কিঠোরে। সেখানেই প্রথমে তাঁকে ধর্ষণ করে দুই জেলরক্ষী হরিরাম ও মালি সিংহ। পরে রামচন্দ্র ও তার ভাইপো অত্যাচার চালায় ৩৫ বছরের ওই মহিলার উপর।

এই ঘটনার পর বুধবার(৬ নভেম্বর) সালসালি থানায় অভিযোগ জানান ওই মহিলা। এরপর থেকেই আসামিরা পলাতক।