স্কুল ড্রেস না পরায় ছাত্রীদের প্যান্ট খুলে ক্লাস করাল অধ্যক্ষ

স্কুলের ইউনিফর্ম পড়ে না আসায় পড়ুয়াদের 'প্যান্ট খুলিয়ে নগ্ন করে' ক্লাস করানোর অভিযোগ উঠেছে ভারতের একটি বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে।

আরও অভিযোগ, নগ্ন অবস্থাতেই বাড়ি পাঠানো হয় পড়ুয়াদের। এই ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে বীরভূমের বোলপুরে। প্রিন্সিপ্যালকে সরানোর দাবিতে বিক্ষোভে ফেটে পড়েছেন অভিভাবকরা।

জানা যাচ্ছে, বোলপুরের একটি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে গতকাল ঘটনাটি ঘটেছে। অভিযোগ, প্রথম শ্রেণি থেকে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত প্রায় জনা তিরিশেক পড়ুয়াকে নগ্ন করে ক্লাস করানো হয়। সারাদিন সেইভাবেই স্কুলে থাকে ওই পড়ুয়ারা। তারপর সেভাবেই বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

স্কুল কর্তৃপক্ষ দাবি করে, ওই পড়ুয়ারা নাকি স্কুলের ইউনিফর্ম পরে আসেনি। 'ভুল পোষাক' পড়ে এসেছিল।

এই ঘটনা সামনে আসতেই বিক্ষোভে ফেটে পড়েন অভিভাবকরা। এই ঘটনায় গতকালই শান্তিনিকেতন থানায় লিখিত অভিযোগ করেন পড়ুয়াদের অভিভাবকরা। বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা। বিষয়টি 'মিটমাট' করতে শেষে শান্তিনিকেতন থানায় গিয়ে ক্ষমা চেয়ে নেন প্রিন্সিপাল।

তবে আজ সকাল থেকে ফের স্কুলে এসে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন অভিভাবকরা। এই ঘটনার জন্য প্রিন্সিপ্যালকে সরানোর দাবি জানান তাঁরা। চাপে পড়ে শেষ পর্যন্ত স্কুল কর্তৃপক্ষ তাদের ভুল স্বীকার করে। তবে এ ঘটনার রিপোর্ট তলব করেছেন পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষামন্ত্রী।