টানা বৃষ্টিতে ভারতে আকস্মিক বন্যা, নিহত ১৭

ভারতের চেন্নাইসহ তামিলনাডুতে চলছে ভয়ঙ্কর বৃষ্টি। যার জেরে সৃষ্টি হয়েছে আকস্মিক বন্যার। ইতিমধ্যেই কোয়েম্বাটোরে বৃষ্টির জেরে মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ১৭ জনের। এদের মধ্যে ২ জন শিশুও রয়েছে।

সোমবার (২ নভেম্বর) কোয়েম্বাত্তুরুতে দেওয়াল চাপা পড়ে মৃত্য হয়েছে ১৭ জনের। আজ আরও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

জানা যাচ্ছে, ২০০ ফুটের একটি কম্পাউন্ড ওয়াল বেশ কয়েকটি বাড়ির ওপর ভেঙে পড়ে। ঘটনাটি ঘটেছে আজ ভোর সাড়ে পাঁচটার সময়। একটি সংবাদ সংস্থার বক্তব্য ওই সময় বাড়ির সকলেই ঘুমিয়েছিল। ফলে ঘটে মর্মান্তিক পরিণতি।

ধ্বংসস্তুপ থেকে মৃতদেহ উদ্ধারে কাজে নামে দমকল কর্মীরাও। ইতিমধ্যেই তামিলনাডু সরকার মৃত পরিবার পিছু ৪ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে। মৃতদের মধ্যে রয়েছে ১০ জন মহিলাও রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ভারত মহাসাগরে নিম্নচাপের জেরে গত দুদিন ধরেই তুমুল বৃষ্টি চলছে কোয়েম্বাটুরে। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন এলাকায় রেড অ্যালার্ট জারি হয়েছে।

রাজ্যের বিপর্যয় মেকাবিলা দফতর সূত্রে জানা যাচ্ছে, সোমবার স্কুল-কলেজে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে তিরুভাল্লুর, থুটুকোডিস রামানাথ পুরমোর মতো এলাকায়। স্কুলে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে কাঞ্চিপুরম, কাড্ডালোর-সহ রাজ্যের বেশকিছু এলাকায়।

টানা বৃষ্টির কথা মাথায় রেখে মাদ্রাজ বিশ্ববিদ্যালয় ও আন্না বিশ্ববিদ্যালয়ে ২ ডিসেম্বরের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। পুদুচেরিতেও স্কুল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

প্রবল বৃষ্টি ও সঙ্গে দমকা হাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন উপকূলবর্তি এলাকার মত্সজীবীরাও। মন্দাপন উপকূলে একাধিক মাছ ধরার নৌকো ও ট্রলার ভেঙে গিয়েছে। শঙ্কারাবারানি  নদীর জলস্তর বৃদ্ধির কথা মাথায় রেখে বন্যার সতর্কবার্তা জারি করেছেন রাজ্য সরকার।