‘নেহেরুই সবচেয়ে বড় ধর্ষক’

গত কয়েকদিন ধরে ভারতে ঘটছে একের পর এক ধর্ষণ। আর এর মধ্যেই শুরু হয় রাজনৈতিক বাক-বিতণ্ডা। রাহুল গান্ধী বলেছেন, ভারত ধর্ষণের রাজধানী হয়ে উঠেছে। এতগুলো ধর্ষণের ঘটনায় বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিতে গিয়ে এমন মন্তব্য করেছেন তিনি। আর তার জবাব দিতে গিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন সাধ্বী প্রাচী।

রবিবার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে সাধ্বী প্রাচী বলেন, রাহুল গান্ধীর এমন মন্তব্যের জন্য লজ্জা হওয়া উচিৎ। সবথেকে বড় ধর্ষক তো ছিলেন নেহরু।

নেহরু-গান্ধী পরিবারের বিরুদ্ধে এমন বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন সাধ্বী প্রাচী। তাঁর দাবি, সন্ত্রাসবাদ, মাওবাদ কিংবা ধর্ষণ- আজ দেশ জুড়ে যা কিছু চলছে তার সবটাই নাকি নেহরু পরিবারের জন্য।

সম্প্রতি, হায়দরাবাদে মহিলা চিকিৎসককে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে মেরেছে ধর্ষকরা। তারপর উন্নাও-কাণ্ডে ধর্ষিতাকে আদালতে যাওয়ার পথে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। এইসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই রাহুল গান্ধী আক্রমণ করেছিলেন।

প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরকারের সমালোচনা করে বলেন, এনডিএ সরকারের আমলে ভারত ধর্ষণের রাজধানীতে পরিণত হয়েছে। গোটা বিশ্বের কাছে লজ্জার যে ভারতে আজ একের পর এক ধর্ষণের ঘটনা ঘটে চলেছে। কোনও দৃকপাত নেই সরকারের। মহিলা নিরাপত্তায় মোদী সরকার শোচনীয়ভাবে ব্যর্থ।

তারই পাল্টা জবাব দিতে গিয়ে বিতর্কিত এক মন্তব্য করে বসলেন বিজেপি নেতা। এ নিয়ে এখন রীতিমতো উত্তাল ভারতের রাজনীতিক অঙ্গন।