প্রথমবার আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ পেলেন সু চি

আটকের প্রায় আট মাসের মাথায় প্রথম সামরিক আদালতে সাক্ষ্য দিলেন মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চি। তার বিরুদ্ধে আনা জনগণকে ‘উস্কানি’ দেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেন তিনি।

চলতি বছরের জুন মাসে সেনা সরকারের অধীনে শুরু হয় সু চি’র বিচার প্রক্রিয়া। মঙ্গলবারই (২৬ অক্টোবর) প্রথম আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ পান তিনি।

তবে সংবাদকর্মীদের প্রবেশের সুযোগ দেয়া হয়নি নেই পিদোর বিশেষ আদালতে। এমনকি সু চি’র আইনজীবীদেরও সংবাদ মাধ্যমে কথা বলার বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সু চি’র পক্ষের একজন আইনজীবী জানান, সেনা অভ্যুত্থানের সমালোচনা করে দেয়া দু’টি বিবৃতি নিয়ে নিজের বক্তব্য তুলে ধরেছেন সু চি। গত ফেব্রুয়ারিতে তার দলের পক্ষে প্রকাশিত ওই বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলোকে সামরিক সরকারের সাথে কাজ না করার আহ্বান জানানো হয়।

উল্লেখ্য, সু চির বিরুদ্ধে দায়ের করা বেশ কয়েকটি অভিযোগের জেরে কয়েক দশক ধরে জেলে থাকতে হতে পারে তাকে।