ভারত-বাংলাদেশ-পাকিস্তান এক হয়ে যেতে পারে: হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী

পূর্ব জার্মানি এবং পশ্চিম জার্মানির এক হয়ে যেতে পারলে ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশ ও পাকিস্তান এক হয়ে যেতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের হরিয়ানা প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাত্তা।


সোমবার (২৬ জুলাই) গুরুগ্রামে বিজেপির জাতীয় সংখ্যালঘু মোর্চার তিন দিনের প্রশিক্ষণ শিবিরের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মনোহর লাল এসব মন্তব্য করেন।


হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, যখন পূর্ব এবং পশ্চিম এক হতে পারে, তখন পাকিস্তান এবং বাংলাদেশেরও ভারতের সাথে এক হয়ে যাওয়া সম্ভব। বেশিদিন আগে নয়, এই তো ১৯৯১ সালে পূর্ব এবং পশ্চিম জার্মানিতে এটি ঘটেছে। ওই সময় লোকজন বার্লিন প্রাচীর ভেঙে দিয়েছে।


মনোহর লাল বলেন, ১৯৪৭ সালে ভারতের ভাগ হয়ে যাওয়াকে অত্যন্ত ‘বেদনাদায়ক’ বলে অভিহিত করেছেন। সেই সময় এই দেশভাগ ধর্মের ভিত্তিতে করা হয়েছিলো।


‘সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকজনকে ‘সংখ্যালঘু’ তকমা দেয়া হয়েছিলো; যাতে তারা ভয় এবং নিরাপত্তাহীনতা বোধ করতে না পারেন।’


দেশটির বিরোধীদল কংগ্রেসের তীব্র সমালোচনা করে মনোহর লাল খাত্তার বলেন, প্রাচীন এই দলটি সংখ্যালঘুদের মাঝে নিরাপত্তাহীনতার বোধ তৈরি করে। তারা সংঘের ভয় দেখায়। ‘কিন্তু মানুষ এখন কংগ্রেসের আদর্শ বুঝতে পারে,’ বলেন তিনি।


হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বিজেপির উদ্দেশ্য হলো ‘সবকা সাথ, সবকা বিকাশ এবং সবকা বিশ্বাস।’ অর্থাৎ সবাইকে নিয়ে সবার উন্নয়ন এবং সবার বিশ্বাস।


অন্যদিকে, স্বাধীনতার পর থেকে কংগ্রেস সংখ্যালঘুদের ভোট ব্যাংক হিসেবে ব্যবহার করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।