তালেবানকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য, কাবুলে ইরানের রাষ্ট্রদূত বরখাস্ত!

আফগানিস্তানে নতুন দূত নিযুক্ত করেছে ইরান। তালেবানের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্যে জেরে আগের রাষ্ট্রদূত বাহাদূর আমিনিয়ানকে বরখাস্ত করে নতুন দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ইসলামি বিপ্লবী গার্ডের কুদস শাখার পরিচালক হাসসান কাজেমি কওমিকে।


১৯ ডিসেম্বর, সোমবার ইরান ইন্টারন্যাশনালের বরাতে এই তথ্য জানা যায়।


কাবুলে ইসলামি প্রজাতন্ত্রের দূতাবাসের কাউন্সিলর আব্বাস বাদ্রিফার নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে বদ্রিফার দাবি করেছেন যে আমিনিয়ানের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু পূর্বের প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল যে একটি হ্যাকটিভিস্ট গোষ্ঠী দ্বারা ফারস নিউজ এজেন্সি হ্যাকিংয়ের পরে তালেবানের বিরুদ্ধে আমিনিয়ানের মন্তব্য প্রকাশের পরে তাকে বহিষ্কার করা হয়।



কাবুলে ইরানের নতুন রাষ্ট্রদূত হাসসান কাজেমি কওমি


উল্লেখ্য, গত মাসে ‘ব্ল্যাক রিওয়ার্ড’ গোষ্ঠী ইরানের বিপ্লবী গার্ডের সাথে সম্পৃক্ত ফারস নিউজ এজেন্সির অভ্যন্তরীণ নথি হ্যাক করে। এই নথির একটি অংশ ছিল কাবুলে ইসলামি প্রজাতন্ত্রের তৎকালীন রাষ্ট্রদূত বাহাদূর আমিনিয়ানের একটি বক্তৃতার প্রতিলিপি। সেখানে আমিনিয়ান তালেবানকে আফগানিস্তান, অঞ্চল এবং বিশ্বের জন্য ‘একটি বিপর্যয়’ হিসেবে বর্ণনা করেছিলেন এবং দাবি করেছিলেন যে তেহরানের এই সুযোগটি ব্যবহার করা ছাড়া ‘তাদের সভ্য করার’ বিকল্প নেই। বক্তব্যে আমিনিয়ান নিজেই উল্লেখ করেছিলেন যে যদি তার মন্তব্য প্রকাশিত হয় এবং তালেবানরা শুনতে পায়, তাহলে তিনি কাবুলে ফিরে যেতে পারবেন না।


তবে, কাবুলে ইরানের দূতাবাস এক বিবৃতিতে আমিনাইনকে বহিষ্কারের বিষয়টি অস্বীকার করেছে এবং এ ধরনের প্রচারণাকে অঞ্চলে সংকট সৃষ্টির ষড়যন্ত্র বলে বর্ণনা করেছে। দূতাবাস জানায়, মেয়াদের শুরু থেকেই হাসসান কাজেমি কওমি আফগানিস্তানে প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন।